Home / বিনোদন / অপরুপ সৌন্দর্যের লীলাভূমি সাগর কন্যা মনপুরা

অপরুপ সৌন্দর্যের লীলাভূমি সাগর কন্যা মনপুরা

ভোলা জেলার মুল ভুখন্ড থেকে বিচ্ছিন্ন প্রাকৃতিক অপরুপ সৌন্দর্যের লীলাভূমি সাগর কন্যা মনপুরা উপজেলা। এখানে নদী আর সাগরের মিতালীর অপরূপ সৌন্দর্য মানুষকে মুগ্ধ করে। জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এর সৌন্দর্যে মুগ্ধ হয়ে এখানে চিন্তানিবাস গড়ার স্বপ্ন দেখেছিলেন।

এখানকার সুবিশাল ম্যানগ্রোভ বনাঞ্চলে মাথা উচুঁ করে দাঁড়িয়ে আছে নানা প্রজাতির বৃক্ষরাজি। নীল জলরাশির সমুদ্র সৈকত, মায়া হরিণের সৌন্দর্য, ঝাঁকে-ঝাঁকে পাখিদের উড়ে বেড়ানো, নদীর বুকে জেলেদের মাছধরা দৃশ্য যে কারো মন ভোলায়।

জানা যায়, জেলা সদর থেকে ৮০ কিলোমিটার দক্ষিণ পুর্ব দিকে বঙ্গোপসাগরের কোলঘেঁষে মেঘনার মোহনায় ৪টি ইউনিয়ন নিয়ে গঠিত মনপুরা উপজেলা প্রায় দেড় লক্ষাধিক লোকের বসবাস। অতি প্রাচীন দ্বীপটি একসময় পুর্তগীজদের আস্তানা ছিল। যার নিদর্শন এখনও বয়ে বেড়ায় এখানকার লোমশ কুকুর। মনপুরার সবচেয়ে আকর্ষণীয় বিষয় হচ্ছে সারিসারি ম্যনগ্রোভ বনাঞ্চল। এখানকার ছোট বড় ৮-১০ টি চরে বন বিভাগের প্রচেষ্টায় গড়ে উঠেছে সবুজের । শীত মৌসুমে শত-শত অতিথি পাখির কলতানে মুখরিত থাকে এসব চরাঞ্চল। এই চরগুলো হলো চর তাজাম্মুল, চর পাতালিয়া, চর পিয়াল, চর নিজাম, চর সামসুউদ্দিন, লালচর, ডাল চর, কলাতলীর চর ইত্যাদি।

সরেজমিনে মনপুরার বিভিন্ন স্থান ঘুরে ও সেখানকার মানুষের সাথে আলাপ করে জানা যায়, মনপুরা শুধু দেশে নয় দেশের বাইরেও দর্শনীয় জায়গা হিসেবে পরিচিত। যে কোন মানুষ কাজে অথবা ভ্রমণে এসে এখানকার রূপে মুগ্ধ হয়ে ভালোবেসে ফেলেছেন। এখানে না এলে বোঝার উপায় নেই সবুজের দ্বীপ মনপুরায় লুকায়িত আছে কি সৌন্দর্য আর পর্যটনের অপার সম্ভাবনা। কি এক মায়া জালে পর্যটক আর ভ্রমণ পিপাসুদের আটকে দেয় ৮শ’ বছরের পুরানো এ দ্বীপটি।

এখানে কাক ডাকা ভোরে নদীর বুক চিরে লাল টুকটুকে সূর্য হাসতে-হাসতে যেমন তার দিন শুরু করে, তেমনি শেষ বিকেলে মেঘের হাত ধরে টুপ করেই ডুব দেয় নদীর জলে । অর্থাৎ এখান থেকে একই সাথে সূর্যোদয় ও সূর্যাস্ত দেখা সম্ভব। এসব অপার সম্ভাবনাকে পূঁজি করে মনপুরায় সম্প্রতি গড়ে উঠেছে । আর ওই পর্যটন কেন্দ্রটি এখন ভ্রমণপিপাসুদের বাড়তি আকর্ষণ হয়ে দাড়িয়েছে।

প্রাকৃতিক সৌন্দর্যের পাশাপাশি এখানে বিশেষ কিছু খাবার রয়েছে। তার মধ্যে শীতের হাঁস, মহিষের কাচা টক দই, টাটকা ইলিশ, বড় কইমাছ, মাগুর, কোরাল, বোয়াল ও গলদা চিংড়ি অন্যতম। মেঘনা নদীর টাটকা ইলিশ আর চরের মহিষের কাঁচা দুধের স্বাদ এনে দিতে পারে ভিন্ন এক অনুভূতি।

About admin

Check Also

সুস্বাদু মাছের ডিমের নানান পুষ্টিগুণ

মাছের ডিম খেতে কার না ভাল লাগে? অনেকে তো আবার মাছই কেনেন মাছের ডিম খাওয়ার …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *